1. masudkhan89@yahoo.com : admin :
  2. masudkhan89@gmail.com : Masud Khan : Masud Khan
  3. news.chardike24@gmail.com : চারদিকে ২৪.কম : রাইসা আক্তার
শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০১:৪৭ অপরাহ্ন

কোম্পানীগঞ্জে কলেজছাত্রী প্রিয়তা হত্যার আসামী রুবেল গ্রেফতার

  • আপডেট সময়: শুক্রবার, ৪ মার্চ, ২০২২
  • ২২ দেখেছেন
আজাদ ভূ্ঁইয়া, স্টাফ রিপোর্টার : নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর কলেজ ছাত্রী শাহনাজ পারভিন প্রিয়তা (২২) হত্যার প্রধান আসামি উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের  মকবুল আহাম্মদের ছেলে অটোরিকশা চালক মো.রুবেল (২৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
এ ঘটনায় পুলিশ উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৮নম্বর ওয়ার্ডের মজিবুল হকের ছেলে মমিনুল হক ফারুকেও (৩০) আটক করেছে।
শুক্রবার (৪মার্চ)  নোয়াখালি জেলা পুলিশের পক্ষে  অতিরিক্ত পুলিশ সুপার  দীপক জ্যোতি স্বাক্ষরিত  বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পার্শ্ববতী সুবর্ণচর উপজেলার চররশিদ গ্রামে অভিযান চালিয়ে আসামির শ্বশুর বাড়ি থেকে শুক্রবার ভোর ৫টার দিকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
 জিজ্ঞাসাবাদে সে ঘটনার সাথে তাঁর সম্পৃক্ততা স্বীকার করে তাঁর গলার নিচে ভিকটিমের নখের আঁচড়ের দাগ দেখায় । সে জানায় দীর্ঘদিন যাবৎ উক্ত তরুণীর প্রতি তার লোলুপ দৃষ্টি ছিল ।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঘটনার রাতে তরুণী রুবেলের অটোরিকশায় উঠলে সে সোজা পথে না গিয়ে কবরস্থানের পার্শ্বে জমির আইল ধরে ঘটনাস্থলের দিকে যেতে থাকে। এতে তরুণী প্রতিবাদ করলে সে জানায়  ভিকটিমের নানা বাড়ী যাওয়ার সবচেয়ে সোজা পথ এটি।  তখন ভিকটিম রিকশা থেকে নেমে  হাঁটা শুরু করলে রুবেল পিছন থেকে ভিকটিমের মুখ চেপে ধরে। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে ভিকটিম কাবু হয়ে পড়লে ওড়না দিয়ে তার মুখ শক্ত করে বেঁধে আসামি রুবেল তাকে জোরপূর্বক একাধিকবার ধর্ষণ করে । পরবর্তীতে সে দেখতে পায় ভিকটিম দম বন্ধ হয়ে মারা গেছে ।

আসামি রুবেল তখন  ভিকটিমের ব্যবহৃত মোবাইল নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে এবং পথিমধ্যে জামাইয়েরটেক মোড়ের মসজিদের পার্শ্বে ক্ষেতের মধ্যে মোবাইল থেকে সীম খুলে ভেঙ্গে  ফেলে দেয়।
পুলিশ আসামি রুবেলের স্বীকারোক্তি ও দেখানো মতে নিহত তরুণীর ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও ভিকটিমের দুটি ভাঙ্গা সীম কার্ড ও হত্যাকারীর অটোরিকশাটি উদ্ধার করে । এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা বাদী হয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানায় ১মার্চ লিখিত এজহার দাখিল করে।

উল্লেখ্য, গত ২৮ ফেব্রুয়ারি সোমবার দুপুরে বসুরহাট পৌরসভার ৭নম্বর ওয়ার্ডের একটি ধানক্ষেত থেকে শাহানাজ পারভিন প্রিয়তার রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রিয়তা বসুরহাট সরকারি মুজিব কলেজের স্নাতক তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী এবং বসুরহাট মডার্ন হাসপাতালের নার্স হিসেবে কর্মরত ছিল।

0Shares

Leave a Reply

Your email address will not be published.

একই বিভাগের আরও সংবাদ
© All rights reserved © 2021 Chardike24.com
ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট @ ইজি আইটি সল্যুশন