Saturday, April 20, 2024

বাংলাদেশে বিশ্বকাপের ম্যাচ খেলতে আগ্রহী পাকিস্তান

ভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক শীতল সম্পর্কের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক আসরেও। আগামী সেপ্টেম্বরে পাকিস্তানে হওয়ার কথা এশিয়া কাপের ষোড়শ আসর। ওই আসরে পাকিস্তানে খেলতে যেতে নারাজ ভারত। তারা তৃতীয় নিরপেক্ষ কোনো ভ্যেনুতে খেলতে চেয়েছে। “হাইব্রিড মডেল” নিয়ে আলোচনা হলেও প্রতিবেশী দুই দেশের অনড় অবস্থানে এশিয়া কাপের ভেন্যুর সিদ্ধান্ত ঝুলে আছে।

ভারতের এমন জেদের জেরে এর আগেই পাকিস্তান ক্রিকে বোর্ড জানিয়েছিল, ভারত যদি এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে না যায়, তাহলে তারাও ভারতের মাটিতে ওয়ানডে বিশ্বকাপে অংশ নেবে না। তারা ওয়ানডে বিশ্বকাপের নিজেদের ম্যাচগুলো বাংলাদেশে খেলতে চায়।

একই কথার পুনরাবৃত্তি করলেন পিসিবি চেয়ারম্যান নাজাম শেঠি। বৃহস্পতিবার (১১ মে) ভারতের টিভি চ্যানেল স্পোর্টস তাককে দেওয়া এক সাক্ষাৎকার তিনি এ কথা বলেন।

শেঠি হুমকির সুরে বলেন, “ভারত পাকিস্তানে খেলতে না এলে পাকিস্তানও ভারতে খেলতে যাবে না। এটা আমাদের সিদ্ধান্ত, আমাদের কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত।”

বিসিসিআই পাকিস্তানে দল না পাঠানোর ক্ষেত্রে ভারত সরকারের অনুমতি না থাকার কথা বলে থাকে। শেঠি বলেন, “বিশ্বকাপের ক্ষেত্রে একই যুক্তি দেবে পিসিবিও। ভারতের সরকার যদি বিসিসিআইকে পাকিস্তানে দল পাঠাতে নিষেধ করে, আমাদের সরকারও ভারতে বিশ্বকাপ খেলার জন্য অনুমতি দেবে না।”

পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, “ভারত ছাড়া আর কোনো দেশের পাকিস্তানে গিয়ে খেলতে আপত্তি নেই। এখন ভারতের কারণে হাইব্রিড মডেল চালু হলে একই নিয়ম ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপ এবং ২০২৫ চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও কার্যকর হতে হবে। সে ক্ষেত্রে পাকিস্তানের বিশ্বকাপের ম্যাচ বাংলাদেশে হতে পারে।”

সংযুক্ত আরব আমিরাতের গরমকে কারণ দেখিয়ে হাইব্রিড মডেলের এশিয়া কাপে আপত্তি জানিয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। আবার ভারত রাজি নয় পাকিস্তানে যেতে। সব পক্ষ এমন অবস্থায় থাকলে এশিয়া কাপই হবে না বলে শঙ্কা প্রকাশ করেন পিসিবি চেয়ারম্যান।

দুই ধাপে টুর্নামেন্ট আয়োজনের এই প্রস্তাব এখন বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।

পিসিবি চেয়ারম্যান বলেন, “তিন দিন আগে দুবাইয়ে এসিসির এক সিনিয়র ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছে আমার। তাকে হাইব্রিড মডেল ব্যাখ্যা করার পর তিনি সেটা জয় শাহর সঙ্গে আলোচনা করেছেন। পরে উনি আমাকে জানালেন, জয় শাহ এই মডেলে কোনো সমস্যা নেই বলেছেন। তবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার সঙ্গে পরামর্শ করবেন বলে জানিয়েছেন।”

ভারত সবশেষ ২০০৮ সালে এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তান সফর করে। ২০০৬ সালে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে পাকিস্তানে যায় তারা। আর দুই দলের সবশেষ দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হয়েছে ২০১২-১৩ মৌসুমে, ভারতের মাটিতে। পাকিস্তান সবশেষ ভারত সফর করে ২০১৬ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে।

- Advertisement -spot_img

আরো পড়ুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ খবর